তৌহিদুল ইসলাম রাসো

রিসার্চ অফিসার, ডিসমিসল্যাব
মুস্তাফিজের ছবি-ভিডিও সম্পাদনা করে বেটিং সাইটের প্রচার
This article is more than 5 months old

মুস্তাফিজের ছবি-ভিডিও সম্পাদনা করে বেটিং সাইটের প্রচার

তৌহিদুল ইসলাম রাসো

রিসার্চ অফিসার, ডিসমিসল্যাব

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়তে দেখা গেছে, যেখানে মুস্তাফিজকে বেটিং সাইটের পক্ষে প্রচারণা চালাতে দেখা যাচ্ছে। একটি পেজ থেকে রিল আকারে ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে। তবে ডিসমিসল্যাবের যাচাইয়ে দেখা গেছে ভিডিওটি মুস্তাফিজের একটি ভিডিও ও ছবি সম্পাদনা করে তৈরি করা হয়েছে। ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করা হয়েছে বাংলাদেশের এই ক্রিকেটারের ফেসবুকইন্সটাগ্রাম প্রোফাইল থেকে।

সম্পাদিত ভিডিওতে দেখা যায় মুস্তাফিজ একটি চেয়ারে বসে আছেন এবং তাঁর মোবাইলটি দেখাচ্ছেন। এবং মোবাইল স্ক্রিনে ভেসে উঠছে একটি বেটিং সংক্রান্ত ভিডিও। ফেসবুক রিলটির উপরের অংশে লেখা- “মুস্তাফির রহমান:-আমি সবার কাছে সুপারিশ করছি!” আর নিচের অংশে লেখা- “জয় নিশ্চিত”। ইলোনবেট নামের একটি অ্যাপের লোগো পুরো ভিডিওতে দেখানো হয়। ভিডিওর শেষের দিকে মুস্তাফিজের একটি ছবি যোগ করে লেখা হয়েছে “ডাউনলোড করে খেলুন।” উল্লেখ্য, পেজটি গত বছরের সেপ্টেম্বরে মাসে খোলা হয়।

সম্পাদনা করা এই ভিডিওতে মুস্তাফিজের যে ভিডিওটি ব্যবহার করা হয়েছে, সেটি নেওয়া হয়েছে এই ক্রিকেটারের ফেসবুক পেজ থেকে। মূল ভিডিওটি পোস্ট করা হয় ২০২১ সালের আগস্টে। ক্যাপশন পড়ে জানা যায় সে সময় কোয়ারেন্টিনে থাকাকালীন কফি খেতে খেতে নিজের বোলিংয়ের পুনঃপ্রচার দেখছিলেন এই খেলোয়াড়। দর্শকদেরও তিনি সেটিই দেখাচ্ছিলেন। কিন্তু ভিডিওর সেই অংশটি সম্পাদনা করে সেখানে বেটিং সাইটের ভিডিও জুড়ে দেয়া হয়েছে। 

রিলের শেষের দিকে মুস্তাফিজের যে ছবি ব্যবহার করা হয়েছে– সেটি নেওয়া হয়েছে তার ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইল থেকে। ছবিটি পোস্ট করা হয়েছিল ২০২২ সালের অক্টোবর মাসে। মূল ছবিটিতে দেখা যায় মুস্তাফিজের সামনে একটি মোবাইল ফোন রাখা আছে এবং সেটির স্ক্রিনে কিছু দেখা যাচ্ছে না। এখানে সেই স্ক্রিনের ওপরে সম্পাদনা করে জুড়ে দেওয়া হয়েছে বেটিং সাইটের ভিডিও।  

রিলে প্রচারিত বেটিং সাইট ইলোনবেটের কোনো অ্যাপ গুগল প্লে স্টোরে খুঁজে পায়নি ডিসমিসল্যাব। তবে অনলাইনে সার্চ করে একাধিক ওয়েবসাইটে অ্যাপটি খুঁজে পাওয়া যায়।

সম্পাদনা করা ভিডিও দিয়ে অবৈধ বেটিং ওয়েবসাইটের প্রচার চালানোর বিষয়টি এবারই প্রথম নয়। এর আগে গত বছরের মার্চে বেসরকারি টিভি, চ্যানেল ২৪-এর লোগো সম্বলিত একটি ভিডিওর মাধ্যমেও একটি বেটিং সাইটের প্রচার চালানো হয়েছিল। সেই ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছিল লাভইউফরেভার নামের একটি ফেসবুক পেজ থেকে। সে সময় এ নিয়ে একটি ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল ডিসমিসল্যাব।

আরো কিছু লেখা