তামারা ইয়াসমীন তমা

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব
মাশরাফি ও সাকিবের ভিডিও বিকৃত করে বেটিং অ্যাপের প্রচারণা
This article is more than 2 months old

মাশরাফি ও সাকিবের ভিডিও বিকৃত করে বেটিং অ্যাপের প্রচারণা

তামারা ইয়াসমীন তমা
রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক দুই অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ও সাকিব আল হাসান বেটিং অ্যাপের প্রচারণা চালাচ্ছেন এমন দুটি ভিডিও রিলস (, ) সামাজিক মাধ্যমে ছড়াতে দেখা গেছে। তবে যাচাইয়ে দেখা গেছে মাশরাফি ও সাকিব এমন কোনো বেটিং অ্যাপের প্রচারণায় অংশ নেননি। তাদের পুরোনো সাক্ষাৎকারের ভিডিওতে ভুয়া অডিও যোগ করে রিলসগুলো বানানো হয়। 

ডিসমিসল্যাবের যাচাইয়ে, দুই ভিডিওতেই মাশরাফি ও সাকিবকে ভিন্ন উচ্চারণে বাংলা বলতে শোনা যায়। ফলে অডিও পুরোপুরি বোঝাও সম্ভব হয়নি। 

মাশরাফির ভিডিওর সঙ্গে জুড়ে দেওয়া অডিওটি বিশ্লেষণে যতটুকু বোঝা যায় তা হচ্ছে, “আমি আপনাকে একটি দুর্দান্ত এভিয়েটর গেমের সুপারিশ করতে পারি। এর সাহায্যে বাংলাদেশের যেকোনো বাসিন্দা আর্থিকভাবে স্বাধীন হতে পারে। এই মুহূর্তে ৫০ হাজারের বেশি বাংলাদেশি নাগরিক প্রতিদিন এভিয়েটর গেম খেলে এবং তাদের মূলধন বাড়ে। অ্যাপটি পেতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।” 

সাকিবের ভুয়া ভিডিওটিতে বলতে শোনা যায়, “শুধুমাত্র ক্রেজি টাইম খেলে আপনি প্রতিদিন ১০ হাজার উপার্জন করতে পারেন। এটি একটি খুব সাধারণ গেম এবং বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয়। আমার অনেক বন্ধু সন্ধ্যায় এটি খেলে এবং তারা দুর্দান্ত করে। …এটি একটি খুব সাধারণ খেলা। অনেক বাংলাদেশি নাগরিক এটি খেলে প্রতিদিন জিতেছে। এখনই এই গেমটি ডাউনলোড করুন এবং খেলা শুরু করুন। কারণ এটি দ্রুত উপার্জনের সুযোগ। এই সুযোগ মিস করবেন না।” 

মাশরাফির নামে ছাড়া ভিডিও-র উৎস খুঁজতে গিয়ে ইউটিউবে  “মাশরাফীর কাছে ক্রিকেট নাকি রাজনীতির মারপ্যাঁচ কঠিন?” শীর্ষক একটি ভিডিও পাওয়া যায়। সময় টিভির অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল থেকে ২০২৩ সালের ১ জুলাই ভিডিওটি প্রচারিত হয়। এতে দেখা যায় ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠানে ব্যক্তিগত ও কর্মজীবন নিয়ে কথা বলছেন সাবেক এই অধিনায়ক।

ডিসমিসল্যাবের যাচাইয়ে দেখা যায়, মূল ভিডিওর ১৩.৩৬ সেকেন্ড থেকে ১৩.৫৬ সেকেন্ড অংশ সম্পাদনা করে মাশরাফিকে নিয়ে বেটিং অ্যাপের প্রচারণার ভিডিওটি বানানো হয়। অডিও পরিবর্তন করে এই অংশটিতে বেটিং অ্যাপের প্রচারণার অডিও জুড়ে দেওয়া হয়েছে। ফান গেমস অনলাইন নামের বিদেশি ভাষার একটি পেজ থেকে রিলসটি ছড়ানো হয়। গুগল ট্রান্সলেটর ব্যবহার করে দেখা যায় পেজের নাম ও পোস্ট সবই থাই ভাষায়। পেজজুড়ে রয়েছে জুয়া ও ক্যাসিনো খেলার প্রচারণামূলক পোস্ট। পেজটিতে সর্বশেষ ২০২১ সালের জানুয়ারির পোস্ট পাওয়া যায়। পেজটি কোন দেশ থেকে পরিচালিত হয় বা এডমিনরা কোন দেশে অবস্থান করছেন এসব তথ্যের উল্লেখ নেই। ফেসবুক অ্যাড লাইব্রেরিতে গিয়ে দেখা যায়, পেজে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে বেটিং অ্যাপের একটি বিজ্ঞাপন প্রচারিত হচ্ছে। মাশরাফির নামে চালানো প্রচারণায় কোনো নির্দিষ্ট বেটিং অ্যাপ বা সাইটের উল্লেখ না থাকলেও, এই বিজ্ঞাপনে ক্রেজি টাইম পিন-আপ ক্যাসিনো নামের একটি অ্যাপ নামাতে বলা হচ্ছে। 

অন্যদিকে, সাকিবের ভিডিওর উৎস খুঁজতে গিয়ে ক্রিকবাজের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলের একটি ভিডিও পাওয়া যায়। ২০১৭ সালের ১৯ এপ্রিল “আইপিএল ২০১৭: কলকাতাকে নিজের দ্বিতীয় ঘর বললেন সাকিব আল হাসান” শিরোনামের ভিডিওটি আপলোড করা হয়। আইপিএল খেলাকালীন ক্রিকবাজকে কলকাতা নাইট রাইডার্সে খেলার অভিজ্ঞতা জানিয়ে সাকিব আল হাসান এই সাক্ষাৎকারটি দেন। মূল ভিডিও-র  ২.৪১ সেকেন্ড থেকে ২.৪৫ সেকেন্ডের ভিডিও কেটে ও সম্পাদনা করে ভুয়া ভিডিওটি বানানো হয়। এখানেও মূল অডিও সরিয়ে ক্রেজি টাইম নামক বেটিং সাইটের প্রচারণার অডিও জুড়ে দেওয়া হয়েছে।

বিমানচালক বাংলাদেশ নামের একটি পেজ থেকে রিলসটি প্রচারিত হয়। পেজটিতে কক্সবাজারের একটি লোকেশন দেওয়া রয়েছে। পেজে বাংলাদেশএভিয়ে ডট অনলাইন নামের একটি ওয়েবসাইটের লিংক দেয়া থাকলেও সাইটটিতে ঢোকা সম্ভব হয়নি । এই পেজ থেকে এর আগেও সাকিব আল হাসানের নামে ভুয়া ভিডিও ছড়াতে দেখা গেছে। সম্পাদনা করা সেই ভিডিওটি ছিল স্পোর্টস-ওয়েবসাইট ক্রিকবাজকে সাকিবের দেওয়া সাক্ষাৎকারের একটি ক্লিপ।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি আরেকটি বেটিং সাইটের প্রচারণায় ব্যবহৃত সাকিব আল হাসানের ভুয়া ভিডিও নিয়ে ফ্যাক্ট-চেক করে ডিসমিসল্যাব। সম্পাদিত ভিডিওতে দেখা যায়, সাকিব সবাইকে ইলোনবেট বেটিং অ্যাপ ডাউনলোড করতে বলছেন। এর আগে বাংলাদেশের আরেক ক্রিকেটার, মুস্তাফিজুর রহমানের একটি ভুয়া ভিডিও বানিয়েও এই বেটিং সাইটের প্রচারণা চালানো হয়েছিল।

আরো কিছু লেখা