তামারা ইয়াসমীন তমা

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব
পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে বিকাশের টাকা দেওয়ার দাবিটি ভুয়া
This article is more than 11 months old
Bkash Scam Feature Image

পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে বিকাশের টাকা দেওয়ার দাবিটি ভুয়া

তামারা ইয়াসমীন তমা
রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব

১৪ এপ্রিল, পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে বিকাশ ১৪০০ টাকা উপহার দিচ্ছে– এমন দাবিতে কিছু পোস্ট ছড়িয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে (, , )। এমন দাবির কিছু বার্তা ছড়িয়েছে বিভিন্ন ম্যাসেজিং অ্যাপেও। 

কিন্তু ডিসমিসল্যাব যাচাইয়ে দেখা গেছে, পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে বিকাশের ১৪০০ টাকা দেওয়ার দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি ভুয়া। বিকাশের লোগের যুক্ত করে নকল একটি ওয়েবসাইট থেকে প্রতারণার উদ্দেশ্যে উপহার প্রদানের এই প্রলোভন দেখানো হচ্ছে।

প্রচারিত পোস্টটিতে বলা হচ্ছে, “টাকা পেতে আপনাকে নিচের লিংকে ঢুকতে হবে, তারপর আপনার নাম, ঠিকানা এবং বিকাশ/নগদ নম্বর দিয়ে আবেদন করতে হবে। আবেদন করার ৫ সেকেন্ডের ভেতর আপনার বিকাশ/নগদ নম্বরে ১৪০০ টাকা চলে যাবে। অবিশ্বাস করার আগে ১ বার চেষ্টা তো করে দেখুন। এই অফার থাকবে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত।”

সংযুক্ত লিংকটিতে ঢুকে দেখা যায়, টাকা পেতে একটি গুগল ফর্মে নাম, ঠিকানা, ফোন, ইমেইল নাম্বার ইত্যাদি ব্যক্তিগত তথ্য চাওয়া হচ্ছে। যেকোনো তথ্য দিলেই ফর্মটি তা গ্রহণ করছে। পরবর্তী ধাপে বিকাশ নাম্বার দিলে একটি বক্স থেকে লেখা কপি করে ১০টি ফেসবুক পোস্টে কমেন্ট করতে বলা হচ্ছে। এক পোস্টে বা গ্রুপে একবারের বেশি কমেন্ট করতে মানা করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করা হলে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, “বর্তমানে বিকাশ এ ধরনের কোনো অফার ঘোষণা করেনি এবং উক্ত অফারগুলোর সাথে বিকাশ-এর কোনো সম্পর্ক নেই।”

মিথ্যা অফারের লোভে পড়ে কিংবা প্রতারিত হয়ে এই ধরনের কোনো ওয়েবসাইট অথবা অন্য কোনো মাধ্যমে কোনো লেনদেন করার বিষয়ে সতর্ক থাকার নির্দেশনাও দেয় বিকাশ।

এছাড়া বিকাশ অ্যাকাউন্ট নাম্বার, পিন, ভেরিফিকেশন কোড বা অন্য কোনো তথ্য কাউকে না দিতে এবং এ ধরনের ওয়েবসাইটের লিংক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করা থেকে বিরত থাকার কথা জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

দেখা গেছে, বিভিন্ন দিবসে এ ধরনের টাকা জেতার অফার লিংক ছড়িয়ে পড়ছে মেসেজিং অ্যাপগুলোতে। এর আগে নারী দিবস, মাতৃভাষা দিবস, বিজয় দিবস উপলক্ষ্যেও এ ধরনের ভুয়া বার্তা ছড়াতে দেখা গেছে, যা ইতোমধ্যে যাচাইও করা হয়েছে। 

প্রসঙ্গত বিকাশের ১০ বছর পূর্তিতে প্রতিষ্ঠানটি কর্তৃক ব্যবহারকারীদের ১০ হাজার টাকা দিচ্ছে দাবি করে একটি পোস্ট ভাইরাল হয়। তবে ফ্যাক্ট-চেকিংয়ের মাধ্যমে দাবিটি মিথ্যা প্রমাণিত হয়।

আরো কিছু লেখা