মিনহাজ আমান

রিসার্চ-লিড, ডিসমিসল্যাব
পঞ্চগড়ে সহিংসতা: আহত ব্যক্তির ছবি পোস্ট করে মৃত্যুর গুজব
This article is more than 12 months old
Panchagarh Feature 5

পঞ্চগড়ে সহিংসতা: আহত ব্যক্তির ছবি পোস্ট করে মৃত্যুর গুজব

মিনহাজ আমান
রিসার্চ-লিড, ডিসমিসল্যাব

গত ৪ মার্চ থেকে সামাজিক মাধ্যমে এক ব্যক্তির ছবি পোস্ট করে (, , , , , ) দাবি করা হচ্ছে, সম্প্রতি পঞ্চগড়ে আহমদিয়া সম্প্রদায়ের জলসা আয়োজনকে কেন্দ্র করে (৩ মার্চ) হওয়া সহিংসতায় তিনি নিহত হয়েছেন।

একই দাবিসহ ছবিটি টুইটারেও পোস্ট করা হয়েছে।

তবে সোমবার (৬ মার্চ), ডিসমিসল্যাব ছবির সেই ব্যক্তির বাবা ও বড় ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেছে। ছবি দেখে তিনি জানিয়েছেন এটি তার ভাই মোহাম্মদ রিফাত আনজুমের; পঞ্চগড়ের সহিংসতার ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় রিফাত ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন এবং তিনি মারা গিয়েছেন বলে যা ছড়ানো হয়েছে, তা মিথ্যা।

গত ৪ মার্চ, পঞ্চগড়ে আহমদিয়া সম্প্রদায়ের জলসাকে কেন্দ্র করে সংঘটিত সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত দুজন মারা গেছেন। গতকাল (৫ মার্চ) রাত ১০টায় প্রকাশিত বিডিনিউজ২৪ এর প্রতিবেদন অনুযায়ী তাদের নাম যথাক্রমে আরিফুর রহমান ও জাহিদ হাসান। এ দুজনের মধ্যে আরিফুর রহমান শুক্রবারে নামাজ শেষে, বিক্ষোভ মিছিলের সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে প্রাণ হারান। অন্যদিকে আহমদিয়া সম্প্রদায়ের জাহিদ হাসানকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে জানান তাদের জলসার আহবায়ক আহমদ তবশের চৌধুরী। একই আন্দোলনে তৃতীয় কোনো ব্যক্তির নিহত হওয়ার কোনো খবর গণমাধ্যমে পাওয়া যায়নি।

কিন্তু ৪ মার্চ থেকে বিভিন্ন ফেসবুক স্ট্যাটাসে চোখ বন্ধ অবস্থায় দেয়ালে হেলান দিয়ে বসে থাকা এক তরুণের ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, “পঞ্চগড়ে কাদিয়ানী বিরোধী আন্দোলনে আরো একজন শহীদ”।

‘উম্মাহ টাইমস’ নামের একটি পেজ ৪ মার্চ একই ক্যাপশনে ছবিটি পোস্ট করলেও পরে সেটি সরিয়ে নতুন সংশোধনী পোস্ট করেছে, যেখানে জানানো হয়েছে ছবির ব্যক্তি রিফাতের মৃত্যুর খবরটি গুজব।

ফেসবুকে একই ছবি সম্বলিত বেশ কিছু পোস্ট পাওয়া যায় যেগুলোতে ছবির ব্যক্তির নাম ‘রিফাত’ এবং তিনি আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছেন বলে উল্লেখ করা হয়।

একটি ফেসবুক পোস্টে আহত রিফাতকে ‘বন্ধু’ বলে সম্বোধন করেন পোস্টদাতা। তার সঙ্গে যোগাযোগ করে আহত রিফাতের বাবা ও ভাইয়ের ফোন নাম্বার সংগ্রহ করা হয়। 

রিফাতের বাবা ডিসমিসল্যাবকে জানান, তার ছেলে মোহাম্মদ রিফাত আনজুম বেঁচে আছেন এবং তিনি ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। রিফাতের চোখে অপারেশন হয়েছে জানিয়ে তার বাবা বলেন, রিফাত ডাক্তারদের তত্ত্বাবধানে আছেন, আর ডাক্তাররা ফোনে কথা বলতে নিষেধ করেছেন।

রিফাতের ভাই জানান, ইতিমধ্যে রিফাত আনজুম ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে তার মৃত্যুর গুজব সম্পর্কে সতর্ক করে পোস্ট দিয়েছেন।

আরো কিছু লেখা