ফামীম আহমেদ

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব
কুড়িগ্রামে ৩১ জনের মুসলমান হওয়ার ঘটনাটি পুরোনো
This article is more than 1 year old
Feature

কুড়িগ্রামে ৩১ জনের মুসলমান হওয়ার ঘটনাটি পুরোনো

ফামীম আহমেদ
রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব

কুড়িগ্রামে ৩১ জন খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন বলে খবর প্রকাশিত হয়েছিল ২০১৯ সালে। পুরোনো সেই খবরটিই আবার নতুন করে প্রচারিত হচ্ছে সাম্প্রতিক ঘটনা বলে। সোশ্যাল মিডিয়ার কিছু পোস্টে খবরটি প্রচার করা হয়েছে “ব্রেকিং নিউজ” আকারে। এটি বিভিন্ন গ্রুপ (, , )  ও পেজে (, , )  পোস্ট ও শেয়ার করা হচ্ছে। সাম্প্রতিক এই পোস্টগুলো বিভিন্ন পেজ ও গ্রুপ থেকে এক হাজার বারের বেশি শেয়ার হয়েছে এবং তাতে দেড় হাজারের বেশি ব্যবহারকারী মন্তব্য করে সম্পৃ্ক্ত হয়েছেন।

যাচাই করেতে গিয়ে দেখা যায়, দাবিটি পুরোনো এবং ২০১৯ সালের একটি খবরকে ২০২৩ সালে শেয়ার করা হচ্ছে নতুনভাবে।

ব্রেকিং নিউজ বলে এই দাবিটি অন্তত ৩০টি পাবলিক পোস্ট পাওয়া গেছে ফেসবুকে। এই পোস্টগুলোতে করা দাবির সঙ্গে কোনো নির্ভরযোগ্য সূত্র সংযুক্ত ছিল না। কি-ওয়ার্ড সার্চ করে জাগো নিউজ ২৪-এ ২০১৯ সালের ২৪ আগস্ট একই শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। এমটিনিউজ২৪, মানবকন্ঠ, আজকের কুমিল্লা, আমাদের সময় ডট কমেও প্রতিবেদনটি ২০১৯ সালেই প্রকাশিত হয়। ঐ বছর ২২ আগস্ট বিডিনিউজ অনলাইন – Onlinebdnews24x7 নামের একটি পেজে এর একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। ৩০ সেকেন্ডের সেই ভিডিওর সঙ্গে লিখিত পোস্টে বলা হয়, ২১ আগস্ট দুপুর দেড়টায় এই ধর্মান্তরের অনুষ্ঠানটি আয়োজিত হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, খুতবা টিভির পরিচালক আমিনুল ইসলাম এবং ইসলামী দাওয়াহ ইনস্টিটিউটের মাওলানা আব্দুল বাসির অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। খুতবা টিভির ফেসবুক পেজ থেকে সেই ঘটনার একটি ভিডিও আপলোড করা হয় ২০১৯ সালের ৪ সেপ্টেম্বরে। 

তাই ৩১ জন খ্রিস্টান ধর্ম থেকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার ঘটনাটি পুরোনো; এবং পুরোনো একটি খবরকে নতুন করে ব্রেকিং নিউজ হিসেবে ছড়ানোর এই দাবিটি বিভ্রান্তিকরও বটে।

দক্ষিণ এশিয়ায় “ধর্মান্তরিত হওয়া” নিয়ে ভুয়া তথ্য ছড়ানোর প্রবণতা নতুন নয়। যে দেশে যে ধর্ম সংখ্যাগরিষ্ঠ সেখানে সেই ধর্ম গ্রহণের ভুয়া খবর প্রায়ই ছড়িয়ে থাকে। যেমন, বাংলাদেশে ২০২২ সালের নভেম্বরেও পুরোনো ভিডিও শেয়ার দিয়ে প্রচার করা হয় যে, কাতারে ১২০ জন ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। এছাড়াও ২০২২ সালের বিভিন্ন সময়ে আইভরি কোস্টের ফুটবল তারকা দিদিয়ের দ্রগবা, হলিউড তারকা মরগান ফ্রিম্যান, ভারতীয় চলচ্চিত্র পরিচালক রাজ চক্রবর্তী, ভারতীয় অভিনেতা টাইগার শ্রফ ও অভিনেত্রী তারা সুতারিয়াকে নিয়ে ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়ার মিথ্যা খবর ফ্যাক্টচেক হয়েছে। 

ভারতের ক্ষেত্রে দেখা যায় অন্য ধর্ম থেকে হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়ার মিথ্যা দাবি। যেমন, ২০২১ সালে পুরোনো ছবি-ভিডিও শেয়ার দিয়ে দাবি করা হয়েছিল যে ইন্দোনেশিয়ার রানী ৩০ হাজার অনুসারী নিয়ে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছেন। সেবছর, এমন আরেকটি মিথ্যা দাবিতে বলা হয়েছিল যে, উত্তর প্রদেশে ৩৪ জন মুসলিম, হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছেন। ধর্মান্তরিত হওয়ার খবর নিয়ে আরো কিছু ফ্যাক্টচেক দেখতে পারেন এই লিংকগুলোতে। (, )

আরো কিছু লেখা