তামারা ইয়াসমীন তমা

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব
পুরোনো ভিডিও দিয়ে সাঈদীর গায়েবানা জানাজার মিথ্যা তথ্য প্রচার
This article is more than 9 months old

পুরোনো ভিডিও দিয়ে সাঈদীর গায়েবানা জানাজার মিথ্যা তথ্য প্রচার

তামারা ইয়াসমীন তমা

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব

সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান কাবা শরীফে যুদ্ধাপরাধের দায়ে দণ্ডিত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর গায়েবানা জানাজা পড়ার অনুমতি দিয়েছেন– এমন দাবিতে সম্প্রতি ফেসবুকে একটি ভিডিও (, , , , , ) ছড়াতে দেখা গেছে। তবে যাচাই করে দেখা গেছে, এটি গত জুলাই মাসের একটি পুরোনো ভিডিও-র অংশবিশেষ। অর্থাৎ, দেলাওয়ার হোসেন সাঈদীর মৃত্যুর আগে থেকেই ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে প্রচারিত হয়ে আসছে।

ছড়িয়ে পড়া ভিডিওটির সঙ্গে যুক্ত ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, “আল্লামা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর গায়েবানা জানাজা কাবা শরীফে পড়ার অনুমোদন”। যাচাইয়ে দেখা যায় ভিডিওতে ১৯ জুলাই, ২০২৩ তারিখের উল্লেখ করা হয়েছে। মূলত এটি ছিল উপসাগরীয় সহযোগিতা পরিষদ (জিসিসি)-র শীর্ষ সম্মেলনের ভিডিও। চলতি বছরের ১৯ জুলাই সৌদি আরবের জেদ্দায় অনুষ্ঠিত জিসিসি শীর্ষ সম্মেলনে এই বক্তব্য রাখেন মোহাম্মদ বিন সালমান। 

১৫ সেকেন্ডের ভিডিওটি মূলত আল আখবারিয়া টিভির ২ মিনিট ৯ সেকেন্ডের একটি সংবাদ প্রতিবেদন থেকে নেওয়া। ১৯ জুলাই আল আখবারিয়া টিভির ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিওটি পাওয়া যায়। আরবিতে লেখা শিরোনামটি অনুবাদ করলে অর্থ দাঁড়ায়, “মধ্য এশিয়ার দেশগুলোর সঙ্গে উপসাগরীয় শীর্ষ সম্মেলন। #যুব_রাজের বক্তব্য”।

ভিডিওটির ১৭ সেকেন্ড থেকে ৩১ সেকেন্ড পর্যন্ত, যুবরাজের দেওয়া আরবি বক্তব্যটিকে একটি টুলের মাধ্যমে ভাষান্তর করা হয়। যার অর্থ দাঁড়ায়, “দুই পবিত্র মসজিদের জিম্মাদার বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের পক্ষ থেকে, আপনার দ্বিতীয় দেশে আপনাকে স্বাগত জানাতে পেরে আমি আনন্দিত। সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি যে, আমাদের প্রথম শীর্ষ সম্মেলনে তিনি আমাদের সাফল্য দান করুক, যার মধ্যে ঐতিহাসিক এক বন্ধনে আবদ্ধ আমাদের দেশগুলোর মঙ্গল রয়েছে।”

অর্থাৎ, ভিডিওটি পুরোনো এবং এখানে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী বা গায়েবানা জানাজা সংশ্লিষ্ট কোনো বক্তব্য নেই। 

এর আগে গত ১৪ আগস্ট দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুর পর থেকেই সামাজিক মাধ্যমে (, , , ) ছড়াতে থাকে যে, পৃথিবীর ইতিহাসে এ পর্যন্ত পবিত্র কাবা শরীফে তিন ব্যক্তির গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে, যাদের মধ্যে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী একজন। 

তবে, ফ্যাক্ট চেকিং সংস্থা রিউমার স্ক্যানারের যাচাইয়ে দেখা যায় কাবা শরীফে এর আগে কেবলমাত্র সৌদি সরকারের রাষ্ট্রীয় নির্দেশেই একাধিক গায়েবানা জানাজার নজির রয়েছে। সৌদি সরকারও দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর জন্য এরকম কোনো আনুষ্ঠানিক গায়েবানা জানাজার আয়োজন করেনি। 

আরো কিছু লেখা