তামারা ইয়াসমীন তমা

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব
এটি জাপানের কোনো মন্ত্রীর ক্ষমা চাওয়ার ছবি নয়
This article is more than 1 year old

এটি জাপানের কোনো মন্ত্রীর ক্ষমা চাওয়ার ছবি নয়

তামারা ইয়াসমীন তমা

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব

জনসম্মুখে ক্যামেরার সামনে মাথা নিচু করে থাকা এক ব্যক্তিকে জাপানের বিদ্যুৎ মন্ত্রী দাবি করে সম্প্রতি ফেসবুক ও টুইটারে বেশ কিছু পোস্ট (, , , ) ছড়াতে দেখা গেছে। পোস্টগুলোর বক্তব্য অনুযায়ী জাপানের একটি ছোট গ্রামে ২০ মিনিট বিদ্যুৎ না থাকায় সংশ্লিষ্ট ওই মন্ত্রী ২০ মিনিট ধরে মাথা নিচু করে ক্ষমা চাচ্ছেন। বেশ কিছু পোস্টে ছবি ছাড়াও (, , ) একই ধরনের দাবি তোলা হয়েছে।

তবে ডিসমিসল্যাবের যাচাইয়ে দেখা গেছে, ছবির ব্যক্তি জাপানের কোনো মন্ত্রী নন, বরং তিনি জাপানিজ অটোমোবাইল প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান হোন্ডা মটর কোম্পানির সাবেক প্রেসিডেন্ট ও শীর্ষ নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) তাকাহিরো হাচিগো।

২০১৭ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে দাবিটি সামাজিক মাধ্যম ফেসবুক ও টুইটারে পাওয়া যাচ্ছে। একাধিক ফ্যাক্টচেকিং সংস্থা (, ,) একে ভুয়া হিসেবে চিহ্নিত করলেও বারবার তা ছড়াতে থাকে। 

দাবিটি প্রথম কোথায় পোষ্ট করা হয়েছে সে সম্পর্কে জানা না গেলেও ২০১৭ সালের এ সংক্রান্ত একটি পোস্টে দ্য লজিকাল পাকিস্তানি নামে একটি প্রতিষ্ঠানের উল্লেখ পাওয়া যায়। ফেসবুক, টুইটারইউটিউবে দ্য লজিকাল পাকিস্তানি নামের প্রতিষ্ঠানটির সন্ধান পাওয়া গেলেও সেখানে এমন কোনো ছবি নেই। এ ব্যাপারে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও এখন পর্যন্ত কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি। 

২০১৮২০১৯ সালেও একই পোস্ট ফেসবুকে ছড়াতে দেখা গেছে।

২০২১ সালে লাইফ লেসনস নামের একটি ফেসবুক পেজে কম্বোডিয়ান ভাষায় একই পোস্ট ও ছবি প্রচারিত হয়। ফ্যাক্টচেকিং সংস্থা ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো ছবিটি জাপানের বিদ্যুৎ বা জ্বালানি মন্ত্রীর নয় বলে দাবিটি খণ্ডন করে। ২০২২ সালে বার্মিজ ভাষায় মিয়ানমারেও একই দাবি সম্বলিত পোস্ট ভাইরাল হয়, যা খণ্ডন করে এএফপি থাইল্যান্ড

রিভার্স ইমেজ সার্চ করে মূল ছবিটি পাওয়া যায় ব্রিটিশ ফটোগ্রাফি স্টক এজেন্সি অ্যালামিতে। ছবির পেছনে হোন্ডা মোটর কোম্পানির লোগোও দেখতে পাওয়া যায়। তবে ভুয়া দাবি সম্বলিত ছবিগুলো থেকে লোগোর অংশটি বাদ দেওয়া হয়েছে।

ছবির ক্যাপশনে লেখা, “২০১৫ সালের ৬ জুলাই জাপানের শীর্ষস্থানীয় অটোনির্মাতা প্রতিষ্ঠান হোন্ডা মোটর কোম্পানির নতুন প্রেসিডেন্ট ও চিফ অপারেটিং অফিসার (সিইও) হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর টোকিও হেড অফিসে আয়োজিত প্রথম সংবাদ সম্মেলনে তাকাহিরো হাচিগো।”

১৯৮২ সালে তাকাহিরো হাচিগো হোন্ডায় যোগ দেন। তিনি প্রথম প্রজন্মের ওডিসি মিনিভ্যান নির্মানের দায়িত্ব পালন করেছেন, যা ১৯৯৯ সালে প্রাথমিক অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ছাড়া হয়েছিল। ২০২১ সালের এপ্রিল পর্যন্ত তিনি হোন্ডার সিইও-র দায়িত্ব পালন করেছেন। পরবর্তী তাঁর জায়গায় দায়িত্ব নেন তোশিহিরো মিব।

নিপ্পন নিউজ-এ একই সংবাদ সম্মেলনের ভিন্ন একটি ছবি পাওয়া যায়। আশেপাশের পরিবেশ দেখে নিশ্চিত হওয়া যায় ছবিটি ২০১৫ সালে হোন্ডার সম্মেলনের।

জাপানি সংস্কৃতিতে সাধারণত সামনে ঝুঁকে অভিবাদন জানানো হয়। জাপানি ভাষায় একে বলা হয় ওজিজি। হাচিগোর প্রথম সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্যের সারসংক্ষেপ পাওয়া যায় হোন্ডার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে। এখানে কোথাও তাঁর ক্ষমা চাওয়ার মতো কোনো প্রসঙ্গ আসেনি। 

আরো কিছু লেখা