স্টিভ সালগ্রা রেমা

ফেলো, ডিসমিসল্যাব
আইপিএলে খেলার জন্য ১৩ কোটি টাকার প্রস্তাব পাননি তামিম ইকবাল
This article is more than 2 months old

আইপিএলে খেলার জন্য ১৩ কোটি টাকার প্রস্তাব পাননি তামিম ইকবাল

স্টিভ সালগ্রা রেমা
ফেলো, ডিসমিসল্যাব

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক তামিম ইকবালকে বেঙ্গালুরুর হয়ে খেলার জন্য ১৩ কোটি টাকা প্রস্তাব করেছেন ভারতের ক্রিকেটার বিরাট কোহলি, এমন একটি দাবি সামাজিক মাধ্যম ফেসবুক ও ইউটিউবে (, , , , , , ) ছড়িয়ে পড়েছে। তবে ডিসমিসল্যাবের যাচাইয়ে দেখা গেছে, তামিম ও কোহলির মধ্যে আদৌ এমন কোনো কথা হয়নি। দুজনের পুরোনো আলাপচারিতার একটি লাইভ ভিডিও কেটে তাতে ভুয়া ক্যাপশন যুক্ত করা হয়েছে।

স্টার নিউজ নামের একটি ফেসবুক পেজ গত ৭ মার্চ ভুয়া ক্যাপশনসহ ১ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের এই ভিডিও পোস্ট করে। ভিডিওর ক্যাপশনে বলা হচ্ছে, ‘লাইভে তামিমকে সরাসরি কোহলির অফার! ১৩ কোটি টাকায় রাজি খান সাহেব, খেলবেন বেঙ্গালুরুর হয়ে’। ১০ মার্চ এই প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত ভিডিওটি ৩৯ লাখ মানুষ দেখেছেন। রিঅ্যাকশন ছিল ২ লাখ ৬৮ হাজার, শেয়ার ৩ হাজার ৭ শ। এরপর কয়েকটি ইউটিউব চ্যানেল (, , , ) এবং একাধিক ফেসবুক পেজ থেকেও (, ) এমন দাবির পোস্ট করা হয়। অবশ্য মূলধারার কোনো গণমাধ্যমে এরকম কিছু প্রচারিত হতে দেখা যায়নি। 

ডিসমিসল্যাবের যাচাইয়ে দেখা গেছে, তামিম ইকবালের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে একটি লাইভ ভিডিওর কিছু অংশ নিয়ে তাতে এই ভুয়া ক্যাপশন যুক্ত করা হয়েছে। ২০২০ সালের ১৮ মে তামিমের পেজ থেকে ফেসবুকে লাইভটি প্রচারিত হয়। ২৬ মিনিটের দীর্ঘ ভিডিওটি শুরু তামিমের বক্তব্য দিয়ে। ভিডিওতে দেখা যায়, তামিম কোহলিকে তাঁর এবং তাঁর পরিবারের কুশল জিজ্ঞেস করছেন। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ২৬ মিনিটের ভিডিওটি যাচাই করে দেখা যায়, তামিম ইকবালকে বেঙ্গালুরুর হয়ে খেলার জন্য কোহলি ১৩ কোটি টাকার প্রস্তাব দিচ্ছেন এমন কোনো দৃশ্য বা অডিও তাতে নেই। মূলত ম্যাচ প্রস্তুতি এবং ব্যাটিং কৌশল সম্পর্কে তামিমকে পরামর্শ দিচ্ছিলেন কোহলি।

ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে-র তথ্যমতে, আইপিএলের ২০২৪ আসরের নিলামে বাংলাদেশের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে মুস্তাফিজুর রহমানকে বাছাই করা হয়েছে। দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত নিলামে বাঁহাতি এই পেসারকে ২ কোটি রুপিতে চেন্নাই সুপার কিংস (সিএসকে) তাদের দলে কিনে নেয়।

কিছু দিন আগে তামিমকে নিয়ে আরেকটি মন্তব্য- সামাজিক মাধ্যম টিকটকে ছড়িয়ে পড়ে; মন্তব্যটি ছিল এবি ডি ভিলিয়ার্সের। রিউমর স্ক্যানারের যাচাইয়ে দেখা যায় তথ্যটি মিথ্যা। 

এর আগেও ক্রিকেট তারকাদের ফেসবুক লাইভের ভিডিও বিকৃত বা সম্পাদনা করে ভুয়া তথ্য ছড়াতে দেখা গেছে। তামিমের ছেলের সঙ্গে সাকিবের মেয়ের বিয়ে দিয়ে তাঁদের মাঝে ঝামেলা মিটিয়ে ফেলতে বলেছেন মাশরাফি– এমন একটি ভুয়া দাবি ফ্যাক্টচেক করে ফ্যাক্ট ওয়াচ। যাচাইয়ে দেখা যায়, লাইভ ভিডিওটিতে মাশরাফি ও তামিমের এমন কোনো আলাপচারিতা ছিল না।

আরো কিছু লেখা