মিনহাজ আমান

রিসার্চ-লিড, ডিসমিসল্যাব
রোনালদোর বিয়ে নিয়ে ভিত্তিহীন খবর ও একটি সম্পাদিত ছবি
This article is more than 1 year old
Featured-Image

রোনালদোর বিয়ে নিয়ে ভিত্তিহীন খবর ও একটি সম্পাদিত ছবি

মিনহাজ আমান
রিসার্চ-লিড, ডিসমিসল্যাব

পর্তুগালের ফুটবল তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো সম্প্রতি যোগ দিয়েছেন সৌদি আরবের ফুটবল ক্লাব আল নাসর-এ। তারপর থেকে তাঁর বর্তমান গার্লফ্রেন্ড জর্জিনাকে বিয়ে সংক্রান্ত একটি খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় শোরগোল তুলেছে। বাংলাদেশি কয়েকটি অনলাইন পোর্টালেও এ সংক্রান্ত খবর প্রকাশিত হয়েছে।

খবরটি হলো- রোনালদো তাঁর বান্ধবী জর্জিনাকে বিয়ে করেছেন। এ সংক্রান্ত একটি সম্পাদিত ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। কিন্তু ডিসমিসল্যাবের অনুসন্ধানে দেখা গেছে, বান্ধবী জর্জিনাকে রোনালদোর বিয়ে করার খবরটি সঠিক নয়। 

সৌদি আরবের নিয়ম অনুযায়ী, বিয়ে না করে একসঙ্গে থাকতে পারেন না কোনো নারী-পুরুষ। ফুটবল তারকা রোনালদো তাঁর বান্ধবী জর্জিনার সঙ্গে দীর্ঘদিন একসঙ্গে থাকলেও তাঁরা বিয়ে করেননি। ফলে প্রশ্ন উঠেছিল যে, সৌদি আরবে তাঁরা একসঙ্গে কীভাবে থাকবেন।

এ নিয়ে বিভিন্ন ভুয়া তথ্য ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়া ও কিছু মূলধারার সংবাদমাধ্যমেও। রোনালদো তার বান্ধবী জর্জিনাকে বিয়ে করেছেন– এমন খবর প্রকাশ হতে দেখা যায় দৈনিক আমাদের সময়, চ্যানেল ২৪সহ আরও কিছু অনলাইন পোর্টালে।

গত ৯ জানুয়ারি দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনে ‘বান্ধবী জর্জিনাকে বিয়ে করলেন রোনালদো’ শিরোনামে একটি খবর প্রকাশিত হয়।

খবরটিতে বলা হয়, সৌদি আরবের রিয়াদ শহরে বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে করেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। 

এই প্রতিবেদনে সূত্র হিসেবে চ্যানেল ২৪-এর উল্লেখ আছে। 

মূলত “বান্ধবী জর্জিনাকে বিয়ে করলেন রোনালদো, রিয়াদে হয়েছে আনুষ্ঠানিকতা” শিরোনামে একটি খবর প্রকাশ করেছিল বাংলাদেশি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ২৪। 

কিন্তু পরবর্তীতে তারা খবরটি বিনা নোটিশে সরিয়ে ফেলে। 

এর বাইরে একুশে সংবাদ ডটকম নামের একটি নিউজ পোর্টালে খবরটি প্রকাশ করে সরিয়ে নিলেও খুলনা গ্যাজেট ডটকম নামের আরেকটি পোর্টালে খবরটি এখনো দেখা যাচ্ছে।

সংবাদমাধ্যমের বাইরে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকেও রোনালদোর বিয়ের ভুয়া খবরটি পাওয়া গেছে।

গত ৯ জানুয়ারি করা পোস্টে বলা হয়েছে, “আনুষ্ঠানিকভাবে বান্ধবী জর্জিনাকে বিয়ে করলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো এবং বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হয়েছে সৌদি আরবের রিয়াদে।”

বাংলা ভাষায় এ সংক্রান্ত কিছু পোস্টের সাথে একটি ফেসবুক প্রোফাইল শেয়ার করা হয়েছে যেটি রোনালদোর বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজের নামে।

কিন্তু এই ফেসবুক পেজটি ভেরিফায়েড নয় এবং এটির ‘এবাউট আস’ সেকশনে দেখা যাচ্ছে, পেজটির অন্তত ৭ জন এডমিন মিশরে অবস্থান করছেন।

জর্জিনার নামে এমন ১২টির বেশি ফেসবুক পেজ পাওয়া যায়, যার অধিকাংশই চালানো হচ্ছে মরক্কো, আলজেরিয়া, সোমালিয়া, ঘানা থেকে।

উল্লেখ্য, ইন্সটাগ্রামে জর্জিনা রদ্রিগেজের ভেরিফায়েড আইডি আছে এবং সেখানে বিয়ে সংক্রান্ত কিছু পাওয়া যায়নি।

রোনালদোর এই বিয়ে সংক্রান্ত খবরটির সাথে কিছু ফেসবুক পোস্টে (, , ) রোনালদো-জর্জিনার চুমুর একটি ছবি শেয়ার করা হয়েছে।

এরকম একটি পোস্টের ক্যাপশনে লেখা হয়েছে: “অবশেষে বান্ধবী জর্জিনাকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে করলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। সৌদি আরবের রিয়াদে হয়েছে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা।”

কিন্তু রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখা গেছে ছবিটি সম্পাদিত।

মূলত মার্কিন গায়িকা এরিয়ানা গ্রান্ডের সাথে রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী ডাল্টন গোমেজের ২১ সালের বিয়ের ছবিকে এডিট করে সম্প্রতি রোনালদোর বিয়ের বলে দাবি করা হচ্ছে।  

অন্যদিকে, ইন্টারনেটে ইংরেজি ও আরবিতে কীওয়ার্ড সার্চ করে কোনো নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে রোনালদো-জর্জিনার বিয়ে সংক্রান্ত কোন তথ্য পায়নি ডিসমিসল্যাব।

গত ৩ জানুয়ারি সৌদি ফুটবল ক্লাব আল নাসরের হয়ে খেলতে বান্ধবীসহ রিয়াদে পৌছেছেন রোনালদো। ৯ জানুয়ারি দ্য ফার্স্টপোস্টের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৬ সাল থেকে রোনালদো-জর্জিনো একসাথে আছেন। তবে তারা এখনো বিয়ে করেননি। 

সর্বশেষ ১০ জানুয়ারি ইউরো নিউজের একটি প্রতিবেদনেও জর্জিনোকে ‘রোনালদোর বান্ধবী’ বলেই উল্লেখ করা আছে। সেখানে ইএফই নামের একটি স্পেনিশ সংবাদ সংস্থার বরাতে বলা হয়েছে, বিয়ে না করেও সৌদি আরবে তারা একসঙ্গে থাকতে পারে।
সার্চ করে দেখা যায়: ২০২১ সালেও রোনালদো’র বিয়ে সংক্রান্ত খবর প্রকাশ করেছিল আল আরব এবং জামানপ্রেস নামের দুটি আরবি ভাষার নিউজ পোর্টাল। তবে আল আরব ডটকমে প্রকাশিত খবরের ভিতরের অংশে এই দাবিটিকে ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া’ খবর হিসেবে উল্লেখ করে।

আরো কিছু লেখা