তামারা ইয়াসমীন তমা

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব
ইলন মাস্ক রোবট স্ত্রী বানাননি, ছবিগুলো এআই নির্মিত
This article is more than 9 months old
Elon Mask Robot Feature Image

ইলন মাস্ক রোবট স্ত্রী বানাননি, ছবিগুলো এআই নির্মিত

তামারা ইয়াসমীন তমা
রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব

সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্প্রতি শোরগোল ফেলেছে টুইটার ও টেসলার মালিক ইলন মাস্কের সঙ্গে নারী রোবটের কিছু অন্তরঙ্গ ছবি। অনেকেই সেগুলো শেয়ার (, , ) দিয়ে দাবি করেছেন যে, ইলন মাস্কের কোম্পানি “রোবট স্ত্রী” তৈরি করছে। তবে ডিসমিসল্যাবের যাচাইয়ে দেখা যায়, দাবিটি সঠিক নয়। এবং ছবিগুলো তৈরি করা হয়েছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) প্রযুক্তির সাহায্যে।

ভাইরাল ছবিগুলোর একটিতে জুম করলে দেখা যায়, ইলন মাস্কের কাঁধে হাত রাখা নারী রোবটটির হাতে ছয়টি আঙুল। সাধারণত কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সাহায্যে নির্মিত ছবিগুলোতে এধরনের সূক্ষ্ম ত্রুটি ধরা পড়ে।

ছবিগুলো রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখা যায়, মাস্ক ও রোবটের এমন তিনটি অন্তরঙ্গ ছবি গত ৪ মে আপলোড করা হয়েছিল ‘আর্ট ইজ টু ইন্সপায়ার’ নামের একটি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে। প্রোফাইলটির ডিসপ্লে নেম জেভিয়ার আর্ট এবং বায়োতে লেখা ডিজিটাল ক্রিয়েটর। ছবিগুলোর সঙ্গে হ্যাশট্যাগে এআই, এআই আর্ট, আর্টওয়ার্ক, শিকাগো এআই আর্ট ইত্যাদি শব্দ যোগ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে তিনি ডিসমিসল্যাবকে জানান, মাস্ক ও রোবটের অন্তরঙ্গ ছবিগুলো তিনি তৈরি করেছেন এআই প্রযুক্তির সাহায্যে। এবং এই কাজে ব্যবহার করেছেন মিডজার্নি সফটওয়্যারের ৫.১ সংস্করণ।

নিজের পুরো নাম না জানালেও তিনি তাঁর ফেসবুক পেজ (গুয়েরেরো আর্ট) ও টুইটার অ্যাকাউন্টের সন্ধান দিয়েছেন। মিস্টার শার্ট নামে তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকেও গত ৫ মে মাস্ক ও রোবটের কিছু অন্তরঙ্গ ছবি পোস্ট করা হয়েছিল।

গুয়েরেরো আর্ট নামের এই ফেসবুক পেজ থেকে পোস্ট করা আরও কিছু এআই নির্মিত ছবি গত মার্চ মাসে ভাইরাল হয়েছিল। যেখানে পোপ ফ্রান্সিসকে বিভিন্ন ভঙ্গিতে দেখতে পাওয়া যায় সাদা জ্যাকেট পরিহিত অবস্থায়। 

শুধু ইলন মাস্ক নন, ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ এবং অভিনেতা ব্র্যাড পিটকে নিয়েও এমন এআই নির্মিত ছবি পাওয়া যায় এই পেজটিতে। এগুলো আপলোড করা হয়েছিল গত ১৭ মে।

ইলন মাস্কের প্রতিষ্ঠান টেসলা অবশ্য সত্যিই রোবট তৈরি নিয়ে কাজ করছে। গত ১৬ মে, টেসলার বাৎসরিক শেয়ারহোল্ডার মিটিংয়ে অপটিমাস নামের এই রোবটের ভিডিও দেখানো হয়। এটি হাঁটতে পারে এবং কোনো জিনিস হাত দিয়ে তুলতে পারে। তবে এর সঙ্গে নারী রোবট তৈরির মতো কোনো বিষয়ের সংযোগ নেই। 

২০২২ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর এই মানুষ-সদৃশ রোবট ‘অপটিমাস’-এর প্রোটোটাইপ প্রদর্শন করেছিলেন মাস্ক। সেখানে এটিকে কোনো বাক্স বয়ে নেওয়া, গাছে পানি দেওয়া, ধাতব বার বহন করার মতো কাজ করতে দেখানো হয়।

ইলন মাস্ককে নিয়ে অনলাইনে এমন ভুয়া দাবি এবারই প্রথম নয়। এর আগে ২০২১ সালে রোবটের সঙ্গে দুই শিশুর একটি ছবিকে ইলন মাস্কের বলে দাবি করা হয়। তবে ইউএসএ টুডের যাচাইয়ে দেখা যায়, ছবিটি ডিজিটাল উপায়ে সম্পাদনা করা হয়েছিল এবং দুই শিশুর কেউই আসলে মাস্ক নন।

২০২২ সালেও ইলন মাস্ককে বিটভেক্স নামে একটি জাল ক্রিপ্টোকারেন্সি ট্রেডিং প্ল্যাটফর্মের প্রচারণায় দেখা যায়, যা ছিল মূলত একটি ডিপফেক ভিডিও। 

টেসলার উদ্যোগে না হলেও এর আগে মানুষের মতো নারী রোবট নির্মাণ প্রচেষ্টার উদাহরণ মিলে। এর মধ্যে ২০১৬ সালে উন্মোচিত ‘সোফিয়া’ অন্যতম।  পরবর্তীতে কোভিড-১৯ মহামারির সময় স্বাস্থ্যসেবা খাতে সেবাদানের উদ্দেশ্যে নির্মিত গ্রেস নামের আরেকটি রোবট জনপ্রিয়তা পায়।

আরো কিছু লেখা