তামারা ইয়াসমীন তমা

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব
@হাইলাইট কমেন্ট করে প্রোফাইল ভিজিটর দেখা সম্ভব নয়
This article is more than 10 months old

@হাইলাইট কমেন্ট করে প্রোফাইল ভিজিটর দেখা সম্ভব নয়

তামারা ইয়াসমীন তমা
রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব

বেশ কিছুদিন ধরে ফেসবুকে একাধিক পোস্টে (, , , , , ) দাবি করা হচ্ছে @highlight লিখে কমেন্ট করলেই দেখা যাবে কারা আপনার ফেসবুক প্রোফাইল ঘুরে দেখছেন। তবে ফেসবুকের প্রাইভেসি নীতিমালা অনুসারে, ব্যবহারকারীরা কে কার প্রোফাইল দেখছেন, তা জানা কখনোই সম্ভব নয়। তারপরও বছরের পর বছর ধরে একই ধরনের ভুয়া দাবি প্রচারিত হয়ে আসছে।

একসময় ‘গোপনে কারা প্রোফাইল দেখে জানুন’- এমন দাবি করে বিভিন্ন ম্যালওয়্যার ইনপুট ও প্রোফাইল হ্যাকের মতো স্ক্যাম ছিল। বর্তমান পোস্টে কমেন্ট করে কারা প্রোফাইল দেখছে তা জানা সম্ভব বলে দাবি করা হচ্ছে। এ ধরনের পোস্টে হাজার হাজার কমেন্ট আসছে। তবে কারা প্রোফাইল দেখছে– এমন কিছুই জানা যাচ্ছে না। এর পরিবর্তে বাড়ছে পোস্টদাতার প্রোফাইল ও পেজের রিচ। মূলত ফেসবুক এনগেজমেন্ট বাড়াতেই ভুয়া এই দাবি নতুনভাবে ছড়ানো হচ্ছে। 

@highlight ব্যবহার করলে কী হয়?

@highlight ফেসবুকের নতুন একটি ফিচার। ইতোমধ্যে বেশকিছু ব্যবহারকারী এই ফিচারটি ব্যবহার করতে পারছেন। তবে এর মাধ্যমে প্রোফাইল ভিজিটকারীদের দেখা যায় না, বরং সপ্তাহে একবার আপনি কমেন্ট করার মাধ্যমে কোনো ফেসবুক পোস্টকে হাইলাইট করতে পারবেন। হাইলাইট করলে আপনার বন্ধুতালিকার ব্যবহারকারীরা সেই পোস্টের নোটিফিকেশন পাবে।

যাচাইয়ে দেখা যায়, ফেসবুক কমেন্টে @highlight টাইপ করলে দেখা যায় হাইলাইট ফিচারটি ব্যাখ্যা করে লেখা হয়েছে ‘can highlight your content once a week’। এর বাইরে যে পেজ থেকে পোস্টটি করা হয়েছে তার নাম আসে সবার ওপরে। এছাড়া, যিনি এখানে কমেন্ট করছেন, তার বন্ধুতালিকার থাকা কয়েকজন ব্যবহারকারীর নামও আসছে। মূলত @ অপশনটি ব্যবহার করা হয় বন্ধু তালিকার সদস্যদের মেনশন করতে। একই ধরনের ফিচার @friends কিংবা @everyone ব্যবহার করেও পাওয়া যায়। @highlight-ও এ ধরনেরই একটি ফিচার।

ফেসবুকের প্রোফাইল কারা ভিজিট করছে এটা কি জানা সম্ভব?

ফেসবুক কখনোই ব্যবহারকারীরা কে কার প্রোফাইল ভিজিট করছে, তা জানার সুযোগ কাউকে দেয় না। এমনকি কোনো থার্ডপার্টি অ্যাপ বা এক্সটেনশন ব্যবহার করেও তা জানা সম্ভব নয়। 

ফেসবুক হেল্প সেন্টারের প্রাইভেসি, সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি অংশে পরিষ্কারভাবে বলা হয়েছে যে, “ব্যবহারকারীদের প্রোফাইল কারা দেখছে, ফেসবুক তা ট্র্যাক করতে দেয় না। থার্ডপার্টি অ্যাপগুলোরও এমন ক্ষমতা নেই। আপনি যদি এমন অ্যাপ দেখেন যারা এ ধরনের দাবি করে, তাহলে অনুগ্রহ করে অ্যাপটি রিপোর্ট করুন”।

ফেসবুক রিচ ও এনগেজমেন্ট বাড়ানোর কৌশল

ফেসবুক পোস্ট বা পেজ যতজন ব্যবহারকারীর ফিডে পৌঁছায়, তাই মূলত ফেসবুক রিচ। অন্যদিকে, ফেসবুক পেজ বা পোস্টে ব্যবহারকারীদের লাইক, কমেন্ট বা শেয়ার সংখ্যাই মূলত ফেসবুক এনগেজমেন্ট। এর বাইরে ভিডিও ভিউ করা, লিংকে ক্লিক করা, এমনকি পোস্ট সেভ করাও এনগেজমেন্টের অংশ হিসেবে বিবেচিত হয়ে থাকে। 

ফেসবুক রিচ সাধারণত ফেসবুক অ্যালগরিদমের একাধিক বিষয়ের ওপর নির্ভরশীল। এর মধ্যে অন্যতম হলো এনগেজমেন্ট বা ফলোয়ার ও নন-ফলোয়ারদের ইন্টারঅ্যাকশন। আর একারণেই পেজ বা প্রোফাইলের রিচ বাড়াতে পোস্টে কমেন্ট করতে বলা অ্যালগরিদমকে প্রভাবিত করতে চাওয়ার বহুল ব্যবহৃত একটি কৌশল। 

যেমন, অনেক সময় কোনো আবেগঘন ছবি বা পোস্ট লিখে ‘আমিন’ লেখার আহ্বান (, ) জানানো হয়। অনেক সময় বিভিন্ন পেইজে ফলোয়ারদের উদ্দেশ্য করে বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন করা হয়। এর সবই মূলত এনগেজমেন্ট এবং রিচ বাড়ানোর উদ্দেশ্যে করা হয়ে থাকে। 

আপাতদৃষ্টিতে এ ধরনের কৌশল ক্ষতিকর না হলেও অনেকসময় এনগেজমেন্ট বাড়াতে ভুয়া তথ্যও ছড়ানো হয়ে থাকে। @হাইলাইট লিখে কমেন্ট করলে প্রোফাইল কারা ঘুরে দেখছে জানা যায় দাবি করাও এমনই একটি কৌশল। এ ধরনের দাবি করা কোনো কোনো পোস্টে হাজার হাজার কমেন্ট পড়ছে। ফলে বাড়ছে রিচ। তবে ফেসবুকে কখনোই প্রোফাইল ভিজিটরদের নাম জানা সম্ভব নয়। বরং বারবার হাইলাইটের মাধ্যমে বিভিন্ন পোস্টে মেনশন হওয়ায় বিরক্তি প্রকাশ করে (, , , ) পোস্ট করছেন ব্যবহারকারীরা। 

ফেসবুক প্রোফাইল ভিজিটর দেখার নামে বিভিন্ন স্ক্যাম

এর আগেও বিভিন্ন সময় ‘জেনে নিন কে দেখল আপনার ফেসবুক প্রোফাইল’ বা ‘গোপনে কারা আপনার ফেসবুকে আসে?’ দাবি করা বিভিন্ন ফেসবুক পোস্ট পাওয়া যায়। ব্যক্তিগত ম্যাসেজেও এ ধরনের দাবি ছড়াতে দেখা গেছে। তবে এগুলোর অধিকাংশই স্ক্যাম। এ ধরনের স্ক্যামগুলোর সঙ্গে সাধারণত কোনো লিংক বা অ্যাপ দেওয়া থাকে। স্ক্যাম লিংকগুলো সাধারণত ফেসবুকের বাইরের কোনো ওয়েবসাইটে নিয়ে যায়, যেখান থেকে ব্রাউজার এক্সটেনশন বা অ্যাপ ইনস্টল করতে বলা হয়। তবে এসব লিংকে ক্লিক করলে রিডাইরেক্ট হওয়া সাইট থেকে আপনার ফোন বা কম্পিউটার ম্যালওয়্যারে আক্রান্ত হতে পারে।

এছাড়া কখনো ফেসবুকের অনুরূপ লগ ইন পেইজ পাওয়া যায়। দাবি করা হয়, আপনার ফেসবুক ফোন নাম্বার বা ইমেইল ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করার মাধ্যমে আপনি প্রোফাইল ভিজিটকারীদের দেখতে পারবেন। কিন্তু অসাবধানতাবশত এখানে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য বা পাসওয়ার্ড দিলে হ্যাকাররা সেসব তথ্য ব্যবহার করে সহজেই আপনার আইডি হ্যাক করে নিতে পারে। 

বাংলাদেশের মূলধারার বিভিন্ন গণমাধ্যমেও (, , , , , , , ) এ ধরনের প্রতিবেদন প্রকাশিত হলেও ফ্যাক্টচেকের মাধ্যমে তা খণ্ডন করা হয়।

আরো কিছু লেখা