তামারা ইয়াসমীন তমা

রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব
বাসে আগুন ও ভাঙচুরে ছাত্রলীগের সংশ্লিষ্টতা সংক্রান্ত স্ক্রিনশট দুটি এডিটেড
Copy of Feature Image

বাসে আগুন ও ভাঙচুরে ছাত্রলীগের সংশ্লিষ্টতা সংক্রান্ত স্ক্রিনশট দুটি এডিটেড

তামারা ইয়াসমীন তমা
রিসার্চার, ডিসমিসল্যাব

সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমে দৈনিক দেশ রূপান্তর পত্রিকার অনলাইন সংস্করণে প্রকাশিত সংবাদের একটি স্ক্রিনশট (, ) ঘুরতে দেখা যায়। এতে দাবি করা হয়, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে বাসে আগুন দেওয়ার সময় দুই ছাত্রলীগ কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে, ডিসমিসল্যাবের যাচাইয়ে দেখা গেছে, সংবাদটি ভুয়া এবং সম্পাদিত। মূল যে সংবাদ সম্পাদনা করে ভুয়া স্ক্রিনশটটি বানানো হয়েছে, সেখানে আগুন দেওয়ার অভিযোগে দুই বিএনপি কর্মীকে আটকের কথা বলা হয়েছে।

সম্পাদনা করা স্ক্রিনশট ছাড়াও এই ভুয়া তথ্যটি টেক্সট আকারে ফেসবুকে প্রচারিত হয়েছে দেশ রূপান্তর পত্রিকার বরাত দিয়ে। দৈনিক স্বাধীনতার কণ্ঠ নামের একটি ফেসবুক পেজও ভুয়া তথ্যটি প্রচার করেছে। 

যাচাইয়ে দেখা যায়, গত ১৩ নভেম্বর দৈনিক দেশ রূপান্তরে “জুসের বোতলে পেট্রোল ভরে আগুন দেওয়ার সময় দুই বিএনপি কর্মী আটক” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদের সূত্র অনুসারে, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে মোট চার বোতল পেট্রোলসহ দুই বিএনপি কর্মীকে পুলিশ আটক করে। আটককৃত ও ছবিতে থাকা ব্যক্তি দুজন হলেন মো. অপু মিয়া ওরফে আকাশ (১৯) এবং মো. ফয়সাল আহম্মেদ মেহেদী (২৪)। গণমাধ্যমকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন জেলা পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল। দৈনিক দেশ রূপান্তর ছাড়াও বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে (, , ) আটক ব্যক্তিদের ছবিসহ সংবাদটি প্রকাশিত হয়। 

পাশাপাশি গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগে আরও দুই ছাত্রলীগ কর্মীকে আটকের আরেকটি ভুয়া সংবাদ ও স্ক্রিনশট প্রচারিত হতে দেখা গেছে ফেসবুকে। তবে স্ক্রিনশটের ছবিটি যাচাই করে দেখা যায় আটককৃতরা হলেন রাজশাহীর তালাইমারি বাদুরতলা এলাকার পিচ্চি আসাদ (২১) ও সালাউদ্দিন সোহাগ (১৯)। 

গণমাধ্যমের সংবাদ অনুসারে, গত ৭ নভেম্বর দেশীয় অস্ত্রহাতে ভিডিও ধারণ করে সামাজিক মাধ্যম টিকটকে আপলোড করার পর তা ভাইরাল হলে পুলিশ তাদের আটক করে। পুলিশের বক্তব্য অনুসারে আটককৃতরা এলাকার কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য। 

আরো কিছু লেখা